বুধবার, ১৮ নভেম্বর ২০২০, ০৮:১১ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
কোভিড-১৯ দ্বিতীয় পর্যায়ে সংক্রমণ মোকাবেলায় হাইমচরে উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে র‍্যালী ও মাস্ক বিতরণ রাত আটটার পর দোকানপাট, ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান বন্ধ__ তাপস মনের মানুষটাকে জীবন সঙ্গী করতে গিয়ে লাশ হলো লালমনিরহাটের সুমন কিশোরগঞ্জে পৌরসভা নির্বাচন ঘিরে চলছে পোস্টার-ফেস্টুনে প্রচারণা মানবতার ছোঁয়া সামাজিক সংগঠনের র‍্যালী ও মাস্ক বিতরণ অনুষ্ঠিত হোটেলবয় থেকে এখন কোটি কোটি টাকার মালিকঃসদরঘাট এলাকায় ত্রাসের রাজত্ব কায়েম দুর্নীতির শীর্ষে সাতক্ষীরা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে ০১ মহিলা সহ ০৩ আসামি গ্রেফতার। দোয়ারাবাজারের পল্লীতে, নৈশপ্রহরীকে কুপিয়ে হত্যা। নীলফামারীতে দিনব্যাপী কৃষক প্রশিক্ষক

মনের মানুষটাকে জীবন সঙ্গী করতে গিয়ে লাশ হলো লালমনিরহাটের সুমন

 

মো:মমিনুর ইসলাম লালমনিরহাট জেলা প্রতিনিধি

লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলার সাপ্টিবাড়ি ইউনিয়নের নাইগোরটারি এলাকার সাইফুল ইসলামের ছেলে ফজলার হোসেন(২১) ওরফে সুমন ফরিদপুরে তার প্রেমিকাকে আনতে গিয়ে দুজনকে ট্রেনে কাটা পড়ে মৃত্যুিবরণ করেছে।

আজ মঙ্গলবার (১৭ নভেম্বর) দুপুরে ফরিদপুরের বোয়ালমারী থানাধীন সুতাশি গ্রামের রেল লাইন থেকে সুমন ও তার প্রেমিকার মৃতদেহ উদ্ধার করে রাজবাড়ী রেলওয়ে থানা পুলিশ।

নিহত সুমন এর প্রেমিকা ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গা উপজেলার চর নারান্দিয়ার আলী আকবরের মেয়ে মুক্তা খাতুন(১৯)।

সুমন এর চাচাতো বোন আফরোজা(১৯) জানায়, গত রবিবার ১৫ নভেম্বর সন্ধ্যায় সুমন তার প্রেমিকাকে আনার জন্য সে প্রমিকার বাড়ির উদ্দ্যেশে রহনা করে বলে জানিয়ে যায় সে ফরিদপুরের উদ্দেশ্যে। তারপরে আজ দুপুর ১২ ঘটিকার কিছু আগে সুমন তাকে কল দিয়ে জানায় সে তার প্রেমিকাকে নিয়ে স্টেশন এসেছে, বাড়িতে আসছে তারা।এরপর আর যোগাযোগ হয়নি।

আফরোজা আরো জানায়, সুমন দীর্ঘদিন থেকে ওই মেয়ের সাথে ফোনে কথা বলে দুজন দুজনকে পাগলের মতো ভালোবাসে তাই তারা দজনে বিয়ে করতে চায়।
দুজনের প্রেমের কথা তাদের পরিবারের লোকজনের কাছ থেকে সম্মতি নেয়।সুমন তাকে ফোন করে বলে দুজনে আজ বাড়িতে আসছে বলে জানায়।দুজনের আসার কথা শুনে পরিবারের সবাই অনেক খুশি হয়।

সুমন তার প্রেমিকাকে নিয়ে আত্মহত্যা করেছে কিনা এমন প্রশ্নের উত্তরে আফরোজা বলেন, আমার ভাই ও তার প্রেমিকা অনেক খুশি ছিলো তারা কখনো আত্নহত্যা করতে পারে না।

এবিষয়ে ফরিদপুর রাজবাড়ী রেলওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) মনিরুজ্জামান বলেন, লাশ উদ্ধার করার জন্য আমরা চেষ্টা করতেছি,লাশ উদ্দার হলে ময়নাতদন্তের জন্য ফরিদপুর সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হবে।তবে দুই পরিবারের পক্ষ থেকে এখন পযন্ত মামলা করা হয়নি বলে জানা যায়।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2017 Dailyprotidinerkhobor
Design & Developed BY Freelancer Zone